বিদেশে রন হক সিকদার ও দিপু হক সিকদারকে আগাম জামিন দেননি

0
151

এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে দেশ ছেড়ে ব্যাংকক যাওয়া সিকদার গ্রুপ অব কোম্পানিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) রন হক সিকদার ও তার ভাই দিপু হক সিকদারকে আগাম জামিন দেননি হাইকোর্ট।

সেইসাথে, আদালতের সময় নষ্ট করায় দুই ভাইকে ১০ হাজার ব্যক্তিগত সুরক্ষা সামগ্রী (পিপিই) জরিমানা করেছেন আদালত। যা আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর তহবিলে জমা দিতে হবে।

থাইল্যান্ডে অবস্থান করে ভার্চুয়ালি এ ধরনের আত্মসমর্পণ ও জামিন আবেদন ‘বিধিবহির্ভূত’ উল্লেখ করে সোমবার বিচারপতি মো. আশরাফুল কামালের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

এর আগে, রবিবার বেসরকারি এক্সিম ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ (এমডি) দুই জনকে হত্যাচেষ্টার অভিযোগে করা মামলায় ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চে আগাম জামিন চেয়ে আবেদন করেন সিকদার গ্রুপের এমডি রন হক সিকদার ও তার ভাই দিপু হক সিকদার। বর্তমানে তারা ব্যাংককে অবস্থান করছেন। কিন্তু বিদেশে বসে এভাবে আগাম জামিন চাওয়ায় হাইকোর্ট ক্ষোভও প্রকাশ করেছেন।

আদালতে দুই ভাইয়ের পক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট আব্দুল বাসেত মজুমার, ব্যারিস্টার আজমালুল হক কিউসি এবং রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

গত ১৯ মে এক্সিম ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ (এমডি) দুই জনকে হত্যাচেষ্টার অভিযোগে এক্সিম ব্যাংক কর্তৃপক্ষ গুলশান থানায় রন হক সিকার ও তার ভাই দিপু হক সিকদারের বিরুদ্ধে মামলা করে।

মামলার বিবরণীতে বলা হয়েছে, গত ৭ মে রন ও দিপু এক্সিম ব্যাংকের এমডি মুহাম্মদ হায়দার আলী মিয়া ও অতিরিক্ত এমডি মুহাম্মদ ফিরোজ হোসেনকে একটি অ্যাপার্টমেন্টে বন্দি করে রাখেন। তাদেরকে গুলি করে হত্যার চেষ্টাও করা হয়।

এদিকে, ঘটনার পর থেকেই রন হক ও দিপু হক পলাতক রয়েছেন। পরে নিজেদের চার্টার্ড বিমানে করে তারা থাইল্যান্ডে পাড়ি জমান। সেখান থেকেই তারা আগাম জামিন চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন জানান।

রাষ্ট্রপক্ষে আইনজীবী ড. মো. বশির উল্লাহ জানান, ‘আইনের দৃষ্টিতে দেশের বাইরে থেকে আগাম জামিন চাওয়ার সুযোগ নেই। আদালত তাদের আবেদন খারিজ করে ১০ হাজার পিপিই জরিমানা করেছেন।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here