করোনা ভাইরাসে মৃতের সংখ্যা ৮৯৬১

0
423

মহামারি আকার ধারণ করা করোনা ভাইরাসে মৃতের সংখ্যা আট হাজার ৯৬১ জন দাঁড়িয়েছে। এছাড়া আক্রান্তের সংখ্যা দুই লাখ ১৯ হাজার ৮৭ জন। বিশ্বের ১৭৩ টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে এই ভাইরাস।

তবে এখন পর্যন্ত ৮৫ হাজার ৬৭৩ জন চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

চীনের জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশনের (এনএইচসি) তথ্য অনুযায়ী, বুধবার (১৮ মার্চ) চীনে আরো ৮ জন মারা গিয়েছেন। চীনে এ পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা তিন হাজার ২৪৫ জন। করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৮০ হাজার ৯২৮ জন । এর মধ্যে মোট ৭০ হাজার ৪২০ জন রোগী সুস্থ হয়েছেন।

চীনের বাইরে সবচেয়ে বেশি আক্রান্তের সংখ্যা ইতালি। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৩৫ হাজার ৭১৩ জন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। বুধবার (১৮ মার্চ) একদিনে রেকর্ড ৪৭৫ জন মারা গেছেন। এ নিয়ে দেশটিতে মোট মৃতের সংখ্যা দুই হাজার ৯৭৮ জনে দাঁড়িয়েছে। এর মধ্যে মোট চার হাজার ২৫ জন রোগী সুস্থ হয়েছেন।

ইরানে মোট ১৭ হাজার ৩৬১ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এখন পর্যন্তএক হাজার ১৩৫ জন মারা গেছেন। সুস্থ হয়েছেন পাঁচ হাজার ৭১০ জন সুস্থ হয়েছেন।

স্পেনে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬৩৮ জনে। দেশটিতে ইতোমধ্যে ১৪ হাজার ৭৬৯ জন আক্রান্ত হয়েছেন। সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ৮১ জন।

জার্মানিতে মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৮ জনে। দেশটিতে ইতোমধ্যে ১২ হাজার ৩২৭ জন আক্রান্ত হয়েছেন। সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ১০৫ জন।

যুক্তরাষ্ট্রে মহামারি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৫৩ জনে। দেশটিতে ইতোমধ্যে নয় হাজার ৩৭১ জন আক্রান্ত হয়েছেন। সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ১০৮ জন।

ফ্রান্সে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৬৪ জনে। দেশটিতে ইতোমধ্যে নয় হাজার ১৩৪ জন আক্রান্ত হয়েছেন। সুস্থ হয়েছেন ৬০২ জন।

অন্য দেশগুলোর মধ্যে দক্ষিণ কোরিয়া ৯১, সুইজারল্যান্ড ৩৩, নরওয়ে ৬, সুইডেন ১০, নেদারল্যান্ড ৫৮, ডেনমার্ক ৪, যুক্তরাজ্য ১০৪, জাপান ২৯, মালয়েশিয়া ২, ইরাক ১১, বেলজিয়াম ১৪, অস্ট্রেলিয়া ৬, অস্ট্রিয়া ৪, কানাডা ৯, গ্রিস ৫, পর্তুগাল ২, ব্রাজিল ৪, স্লোভেনিয়া ১, বাহরাইন ১, পাকিস্তান ১, হংকং ৪, ইরাক ১২, মিশর ৬, থাইল্যান্ড ১, আয়ারল্যান্ড ২, ভারত ৩, স্যান ম্যারিনো ১৪, লেবানন ৪, ইন্দোনেশিয়া ১৯, পোল্যান্ড ৫, ফিলিপাইন ১৭, তাইওয়ান ১, লাক্সেমবার্গ ২, আর্জেন্টিনা ২, আলবেনিয়া ২, বুলগেরিয়া ২, হাঙ্গেরি ১, গুয়াটেমালা ১, তুরস্ক ২, ডোমিনিকান প্রজাতন্ত্র ২, মার্টিনিক ১, বুর্কিনা ফাসো ১, জ্যামাইকা ১, বাংলাদেশ ১, কিউবা ১, কেইম্যান আইল্যান্ড ১, পানামা ১, আলজেরিয়া ৭, কোস্টা রিকা ১, ইকুয়েডর ৩, মলদোভা ১, মরোক্কো ২, ইউক্রেইন ২, গিয়ানা ১, সুদান ১, আজারবাইজান ১ জন করে মারা গেছে।

গত ডিসেম্বরে চীনের উহান শহরে করোনা ভাইরাসের আবির্ভাব ঘটে। প্রতিনিয়ত এই ভাইরাসে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। এখনো কোনো টিকা বা প্রতিষেধক আবিষ্কার করতে পারেনি বিশ্ব স্বাস্থ্যসংস্থা