পদ্মা সেতু উদ্বোধন:সড়কপথে যুক্ত হল বাংলাদেশের এক তৃতীয়াংশ

0
55

পদ্মা সেতু উদ্বোধন:সড়কপথে যুক্ত হল বাংলাদেশের  এক তৃতীয়াংশ 

দুই যুগ আগে যে সেতুর পরিকল্পনা শুরু হয়েছিল, সেই পদ্মা সেতু উদ্বোধনের মাধ্যমে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের এক-তৃতীয়াংশ জেলা রাজধানী সহ বাকি অংশের সঙ্গে সড়কপথে পদ্মা সেতুর মাধ্যমে যুক্ত হয়ে গেল।

সকাল ১০টার দিকে  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উপস্থিত হন। বেলা ১১.৪৫ মি. সেতুর মাওয়া প্রান্তের টোল প্রদান করে বারোটার দিকে মাওয়া প্রান্তে একটি উদ্বোধনী ফলক উম্মোচন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গাড়িযোগে সেতু পার হয়ে জাজিরা প্রান্তে আরেকটি উদ্বোধনী ফলক উম্মোচন করেন ।

উদ্বোধনের আগে মাওয়া প্রান্তে এক সুধী সমাবেশে দেয়া বক্তব্যে তিনি শত প্রতিকূল অবস্থার মধ্যেও এই সেতু নির্মাণের সঙ্গে যারা জড়িত ছিলেন, তাদের ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান।

শেখ হাসিনা বলেন, এই সেতু শুধু ইট-সিমেন্ট-স্টিল-লোহার কংক্রিটের একটি অবকাঠামো নয় এ সেতু আমাদের অহংকার, আমাদের গর্ব, আমাদের সক্ষমতা আর মর্যাদার প্রতীক। এর সঙ্গে জড়িয়ে আছে আমাদের আবেগ, আমাদের সৃজনশীলতা, আমসাদের সাহসিকতা, সহনশীলতা আর জেদ।”

রাজধানী ঢাকার সঙ্গে সড়কপথে যুক্ত হলো দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১টি জেলা। আগে এই পথ ফেরির মাধ্যমে পাড়ি দিতে ঘণ্টার পর ঘণ্টা লেগে যেতো, এখন সেটি পার হওয়া যাবে মাত্র সাত মিনিটে।রবিবার সকাল থেকে ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ পদ্মা সেতু খুলে দেয়া হবে।দ্বিতল এই সেতুতে রেল চলাচলের ব্যবস্থাও রয়েছে। তবে রেল সংযোগের কাজ এখনো শেষ হয়নি।

প্রধানমন্ত্রী ২২শে জুন এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, পদ্মা সেতুর নির্মাণে ব্যয় ধরা হয়েছে ৩০ হাজার ১৯৩ কোটি ৩৯ লাখ টাকা। বাংলাদেশের নিজস্ব অর্থে সেতুটি তৈরি করা হয়েছে।

এই সেতুর মাধ্যমে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের অর্থনৈতিক উন্নয়নে বড় ভূমিকা রাখবে বলে অর্থনীতিবিদরা বলেছেন। এসব জেলায় এর মধ্যেই সেতু ঘিরে নানারকম অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড শুরু হয়েছে।

ছবি:বিবিস