নাানা আয়োজনে সাদার্ন ইউনিভার্সিটিতে ‘বাংলা নববর্ষ-১৪২৬ বরণ

0
1121

সুন্দর স্বপ্ন ও সুখী জীবনের প্রত্যাশায় নানা আয়োজনে ‘বাংলা নববর্ষ ১৪২৬’ কে বরণ করে নিলো সাদার্ন ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ । বছরের প্রথম সূর্যদয়ের সাথে সাথে আনন্দ কোলাহল আর উৎসবে মেতে উঠে পুরো ইউনিভার্সিটি প্রাঙ্গণ। বাংলা নতুন বছরকে উদযাপন উপলক্ষে সাদার্ন ইউনিভার্সিটির পক্ষ থেকে নেওয়া হয় বিভিন্ন বিনোদন ও সাংস্কৃতিক আয়োজনের। সকাল থেকেই গোটা ইউনিভার্সিটি প্রাঙ্গণ জুড়ে সাজ সাজ রব। দিনটা ছিলো অন্যান্য দিনের চেয়ে একেবারে আলাদা। বাসন্তি রংয়ের বাহারী শাড়ি আর খোঁপা ছড়ানো বেলি ফুলের মালা আর পাজামা পাঞ্জাবীতে তরুণ তরুণীরা যেন চির চেনা বাঙালিত্বকে নিজের মধ্যে বরণ করে নিয়েছে। সবার কন্ঠে গলা ছড়ানো গান ‘এসো হে বৈশাখ এসো এসো । সবারই এক কথা আজ সব দুঃখ সব গ্লানি সব না পাওয়ার যন্ত্রণা মুছে যাক। আজ থেকে শুরু হোক নতুন দিনের, নতুন সপ্নের, নতুন গানের।

নববর্ষে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সাদার্ন ইউনিভার্সিটির উদ্যোক্তা ও প্রতিষ্ঠাতা প্রফেসর সরওয়ার জাহান। আরও উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন অনুষদের ডিন, উপদেষ্টা, বিভাগীয় প্রধানগণ, শিক্ষকবৃন্দ,কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ শিক্ষার্থীরা। মানুষের করতালে এবং বিভিন্ন রঙের সাজে শিক্ষার্থীদের নাচ গানের ছন্দে ছন্দে ক্যাম্পাস হয়ে ওঠে এক বর্ণিল রঙে রঙিন ।

বর্ষকে বরণ করে নিতে ইউনিভার্সিটি প্রঙ্গণে আয়োজন করা হয় মেলা, গান, নাচ, অভিনয়, আবৃত্তি, ফ্যাশনশো সহ হরেক রকম উৎসব ও প্রতিযোগিতা। মেলায় বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে ৯টি স্টল অংশ নেয়। স্টলগুলোতে স্থান পায় গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী বিভিন্ন খাবার ও পণ্যসামগ্রী। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হরেক রকমের গ্রামীণ পিঠা, মাটি, বাঁশ,বেতের তৈরি বিভিন্ন ধরনের তৈজষপত্র। সেরা তিনটি স্টল ও তিনটি বিভাগকে তাদের সুন্দর পরিবেশনার জন্য পুরস্কৃত করা হয়। সেরা স্টলের পুরস্কার লাভ করে ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগ। দ্বিতীয় ফার্মাসি ও তৃতীয় হয়েছে যৌথভাবে আইন ও ইসলামিক স্টাডিস। সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় প্রথম হয়েছে ইংরেজি বিভাগ । দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থান লাভ করে কম্পিউটার সায়েন্স ও পুরকৌশল বিভাগ ।

‘সুখী সমৃদ্ধ আগামী এবং শিক্ষার আলোয় আলোকিত হোক জাতি’ এ প্রত্যাশা নিয়ে বর্ষবরণ অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন উদ্যোক্তা ও প্রতিষ্ঠাতা প্রফেসর সরওয়ার জাহান।