গণজমায়েত এড়িয়ে চলার আহ্বান, জন্মশত বার্ষিকীর অনুষ্ঠান কাটছাঁট; বিদেশি অতিথিদের সফর বাতিল

0
452

করোনা ভাইরাস সংক্রামণ রোধে দেশের মানুষকে বড় ধরনের গণজমায়েত এড়িয়ে চলার জন্য আহ্বান । মুজিব জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত গণজমায়েত না করার সিদ্ধান্ত । বিদেশি অতিথিদেরও বাংলাদেশ সফর বাতিল ।

দেশের মানুষকে বড় ধরনের গণজমায়েত এড়িয়ে চলার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সোমবার (৯ মার্চ) মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রীর এ আহ্বানের কথা জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম এবং স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব আসাদুল ইসলাম।

করোনাভাইরাসের ঝুঁকির মুখে সরকার জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের অনুষ্ঠান পুনর্বিন্যাস করেছে। করোনা ভাইরাসের ক্রমবর্ধমান হুমকির মুখে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠান সীমিত ও গণজমায়েত না করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

মুজিব জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন কমিটির প্রধান সমন্বয়ক কামাল আব্দুল নাসের চৌধুরী বলেন, এই উদযাপনের অন্যান্য অনুষ্ঠানগুলো পরিকল্পনা মতোই চলবে। তবে জনসমাগম হবে যেসব অনুষ্ঠানে সেই অনুষ্ঠানগুলো আপাতত এড়িয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তিনি বলেন, আগামী ১৭ই মার্চ ঢাকায় জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে যে জনসমাগম কর্মসূচি নেয়া হয়েছিল, তা আপাতত স্থগিত করা হয়েছে। রোববার রাতে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে উদযাপন কমিটির এক বৈঠকের পর এসব সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। তেজগাঁওয়ের পুরোনো বিমান বন্দর এলাকায় জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে এ জন্মশতবার্ষিকীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নেতাদের উপস্থিত থাকার কথা ছিল।

কামাল আব্দুল নাসের চৌধুরী বিবিসিকে বলেন, যেসব বিদেশি অতিথিকে এই রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল – করোনাভাইরাসের ঝুঁকির কথা বিবেচনায় এনে তাদের প্রতি নতুন করে আমন্ত্রণ পাঠানো হবে। ওই অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর উপস্থিত থাকার কথা ছিল। কিন্তু সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় এবারের মতো সে সফর বাতিল করা হয়েছে। করোনার হুমকির মুখে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অন্য বিদেশি অতিথিদেরও বাংলাদেশ সফর বাতিল হয়েছে।

 

বিবিসি ও ভারতীয় সংবাদমাধ্যম থেকে এ তথ্য জানা যায়।