কঠিন টার্গেটে রোমাঞ্চকর জয় বাংলাদেশের

0
221

কঠিন টার্গেটে রোমাঞ্চকর জয় বাংলাদেশের

জিম্বাবুয়ে সিরিজ নির্ধারণী তৃতীয় ও শেষ টি২০ ম্যাচে বাংলাদেশকে ১৯৪ রানের বিশাল টার্গেট ছুড়ে দিয়েছে জিম্বাবুয়ে। আজ হারারে স্পোর্টস ক্লাবে আগে ব্যাটিং করে ৫ উইকেটে ১৯৩ রানের সৌধ গড়ে স্বাগতিকরা। আজ সিরিজ নির্ধারণী তৃতীয় ও শেষ টি২০ ম্যাচে ১৯৪ রানের বিশাল টার্গেট তাড়া করে জয় তুলে নিয়েছে বাংলাদেশ। এর মধ্য দিয়ে ২-১-এ সিরিজ জয়ও নিশ্চিত হলো অতিথি দলের। এর আগে একমাত্র টেস্ট ও তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ জিতে নেয় টাইগাররা।

আগের ম্যাচের সেরা খেলোয়াড় ওয়েসলে মাধেভেরে আজও দুর্দান্ত ব্যাটিং করে তুলে নেন হাফ সেঞ্চুরি। ৩৬ বলে ৬ বাউন্ডারিতে করেন ৫৪ রান। তবে সবচেয়ে বিস্ফোরক ইনিংসটি খেলেন রেগিস চাকাভা। তিনি ২২ বলে ৬ ছক্কায় ৪৮ রান করেন।

এছাড়া রায়ান বার্ল ১৫ বলে ৩১ ও তাদিওয়ানাশে মারুমানি ২০ বলে ২৭ রান করে দলকে বিশাল সংগ্রহ এনে দেন। বাংলাদেশে পক্ষে ১৯ রানে দুটি উইকেট নেন সৌম্য সরকার। একটি করে উইকেট নেন সাকিব আল হাসান, শরিফুল ইসলাম ও মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন।

ওয়েসলে মাধেভেরে বলে ৬ বাউন্ডারিতে করেন ৫৪ রান। এছাড়া রেগিস চাকাভা ২২ বলে ৬ ছক্কায় ৪৮ রান করেন। এছাড়া রায়ান বার্ল ১৫ বলে ৩১ ও তাদিওয়ানাশে মারুমানি ২০ বলে ২৭ রান করে দলকে বিশাল সংগ্রহ এনে দেন।

জবাব দিতে নেমে রুদ্ধশ্বাস নাটকীয়তা শেষে ৪ বল বাকি থাকতে ৫ উইকেটের জয় তুলে নেয় মাহমুদউল্লাহ দল। ৪৯ বলে ৬৮ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলে বাংলাদেশের জয়ের সবচেয়ে বড় কা–ারি সৌম্য। শেষ দিকে শামীম হোসেন ১৫ বলে ৬ বাউন্ডারিতে ৩১ রানের হার না মানা ইনিংস খেলে বাংলাদেশকে অভাবনীয় এক জয় এনে দেন। এছাড়া মাহমুদউল্লাহ ২৮ বলে ৩৪ ও সাকিব ১৩ বলে ২৫ রান করেন। তরুণ আফিফ হোসেনের ৫ বলে খেলা ১৩ রানও দলের জয়ে মূল্যবান অবদান রেখেছেন। গতকালের তৃতীয় ম্যাচ ও সিরিজের সেরা খেলোয়াড় হয়েছেন সৌম্য সরকার।

দ্বিতীয় ম্যাচে হারের পর গতকাল তৃতীয় ম্যাচেও বিশাল রান পাহাড়ে চাপা পড়ে বাংলাদেশ। ফলে হারের শঙ্কাও উঁকি দিচ্ছিল। এরপর জয় পাওয়া মাহমুদউল্লাহর জন্য বিরাট স্বস্তির। বাংলাদেশ দলনায়ক বললেন, ছেলেরা প্রত্যেকেই অবদান রেখেছে। শেষ দিকে শামীম মূল্যবান ইনিংস খেলেছে। সব মিলিয়ে, ব্যাটিং ইউনিট আজ নিজেদের মেলে ধরেছে। যখন বড় টার্গেট তাড়া করতে হবে তখন পার্টনারশিপটা গুরুত্বপূর্ণ এবং প্রতি ওভারে বাউন্ডারিও চাই। আমি মনে করি, সৌম্য একজন কার্যকর অলরাউন্ডার। তার হাতে বল তুলে দিলে সে উইকেট এনে দিল, আর ব্যাট হাতেও সে দাঁড়িয়ে গেল, নিজের কাজটি করে দেখল।